15 Agrohayon 1428 বঙ্গাব্দ সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১
Home » ফরিদপুরের সংবাদ » ফরিদপুর সদর » বারী তিল-৪ জাতের উৎপাদনশীলতা শীর্ষক কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

বারী তিল-৪ জাতের উৎপাদনশীলতা শীর্ষক কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

সোহাগ জামান।

ফরিদপুরে উচ্চ ফলনশীল রোগ প্রতিরোধ সম্পূর্ন বারী তিল-৪ জাতের উৎপাদনশীলতা ও উৎপাদন প্রযুক্তি শীর্ষক কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ (৬ জুন) রবিবার সকালে ফরিদপুর সদর উপজেলার কানাইপুর ইউনিয়নের বসু নরসিংহদিয়া গ্রামে সরজমিন গবেষনা বিভাগ ফরিদপুরের আয়োজনে ও তেল জাতীয় ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্পের অর্থায়নে এ কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়। কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষনা ইনস্টিটিউট (বিএআরআই) তেলবীজ গবেষনা কেন্দ্রের পরিচালক ড. রীনা রানী সাহা। সরেজমিন গবেষনা বিভাগ ফরিদপুরের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা সেলিম আহমেদের সভাপতিত্বে ও সরেজমিন গবেষনা বিভাগের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এ.এফ.এম রুহুল কুদ্দুসের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ড. মোঃ আব্দুল লতিফ আকন্দ মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা তৈলবীজ গবেষনা কেন্দ্র বিএআরআই গাজীপুর, ড.ফেরদৌসী বেগম প্রকল্প সমন্বয়ক ও প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা তৈলবীজ গবেষনা কেন্দ্র বিএআরআই গাজিপুর, ড. মোঃ সিদ্দিকুর রহমান উর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা উদ্ভিদ রোগতত্ত্ব বিভাগ বিএমআরআই গাজিপুর, ড. মোঃ বজলুর রহমান উর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা গবেষনা উইং গাজিপুর, মোঃ আরিফুল ইসলাম বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা তৈলবীজ গবেষনা কেন্দ্র গাজিপুর, কৃষিবিদ মনোজিত কুমার মল্লিক অতিরিক্ত পরিচালক ডিএই ফরিদপুর, মোঃ রফি উদ্দিন মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা আঞ্চলিক কৃষি গবেষনা কেন্দ্র বারি, ড. মোঃ ছালেহ উদ্দিন মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা আঞ্চলিক ডাল গবেষনা কেন্দ্র বারি এবং বিএডিসি কন্ট্রাক্ট গ্রোয়ার্সের উপ-পরিচালক শফিকুল ইসলাম। এছাড়া স্থানীয় কৃষক ও কৃষানীরা এসময় উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে কৃষি কর্মকর্তারা বলেন,তিল বাংলাদেশে তৃতীয় ভোজ্য তেল ফসল।বাংলাদেশে প্রায় ৮৯ হাজার হেক্টর জমিতে তিল চাষ হয়।ফরিদপুর অঞ্চলে মোট প্রায় ১২ হাজার হেক্টর জমিতে তিরে আবাদ হয়। তিলের বীজে ৪২-৪৫ ভাগ তেল ও ২০ ভাগ আমিষ থাকে। বারী তিল-৪ জাত চাষ করলে অধিক লাভবান হওয়া যায়। কারন, এই জাতটি রোগ প্রতিরোধ সম্পূর্ন ও উচ্চ ফলশীল। স্থানীয় জাতের তিলের ফলন যেখানে মাত্র শতক প্রতি ৩ কেজি সেখানে বাংলাদেশ কৃষি গবেষনা ইনস্টিটিউট কতৃক উদ্ভাবিত বারী তিল-৪ এর ফলন শতক প্রতি ৫ কেজির উপরে। তাছাড়া এই তিল বিদেশে অনেক চাহিদা রয়েছে।যার ফলে এই তিল বিদেশে রপ্তানি করে অনেক বৈদেশিক মুদ্রা আয় করা সম্ভব। এসময় ডাল গবেশনা কেন্দ্রের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তারা বলেন, একটি উচ্চ ফলনশীল তৈল জাতীয় ফসলের জাত উদ্ভাবন করতে আমাদের অনেক কষ্ট করতে হয়। আর এ কষ্ট আমাদের তখনই স্বার্থক হয় যখন আপনারা সেই জাতের ফসল নিজের জমিতে চাষাবাদ করেন। পরে অাগত অতিথিরা বারী তিল-৪ জাতের ক্ষেত পরিদর্শন করেন।

আরও পড়ুন...

ফরিদপুর জেলা প্রশাসকের কাছে বিএনপির স্মারকলিপি প্রদান

বিশেষ প্রতিবেদক। বিএনপির চেয়ারপারর্সন বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর জন্য সরকারের কাছে দাবী …

ফ্লোরা আরিন্দার ১ম মৃত্যু বার্ষিকী আজ

কন্ঠ রিপোর্ট আজ ২৩ নভেম্বর ফ্লোরা আরিন্দার ১ম মৃত্যু বার্ষিকী। গত বছরের এই দিনে ফরিদপুর …