29 Chaitro 1427 বঙ্গাব্দ মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১
Home » ফরিদপুরের সংবাদ » বোয়ালমারী » বোয়ালমারীতে খুনের পর বাড়ী ঘরে হামলা, লুটপাট

বোয়ালমারীতে খুনের পর বাড়ী ঘরে হামলা, লুটপাট

বিশেষ প্রতিবেদক।
ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার পোয়াইল গ্রামে দূর্বত্তদের হাতে আকমল সেখ(৫৫)নামক এক ব্যক্তি খুন হয়েছে। বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনার পর রাতে ও সকালে নিহত পক্ষের লোকজন বিরোধী পক্ষের ১০ থেকে ১৫টি বাড়িতে ব্যাপক লুটপাট চালায়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চতুল ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক আহবায়ক পোয়াইল গ্রামের জামাল মাতুব্বর গ্রুপের সাথে ওই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নতুন কমিটির ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সভাপতি হাসমত মাতুব্বর গ্রুপের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। বুধবার দুই গ্রুপের লোকজনই বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালন শেষে রাতে খিচুরি ভোজের আয়োজন করে। আকমল শেখ অনুষ্ঠানের খিচুরি খেয়ে বাড়ি এসে স্ত্রীর কাছ ২০ টাকা নিয়ে দোকানে বিড়ি কেনার জন্য যায়। বিড়ি কিনে বাড়ি ফেরার পথে দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলায় ও শরীরে মারাত্মকভাবে কুপিয়ে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে পরিবারের সদস্যরা উদ্ধার করে বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার আগেই তার মৃত্যু হয়। নিহতের ঘটনায় হাসমত পক্ষের লোকজন প্রতিপক্ষ জামাল মাতুব্বর লোকজনের ১০ থেকে ১৫টি বাড়িতে ব্যাপক লুটপাট করে। এর আগে গত ২০১৮ সালে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে জামাল মাতুব্বরের চাচাতো ভাই দেলোয়ার মাতুব্বরকে কুপিয়ে হত্যা করে হাসমত পক্ষের লোকজন।
নিহত আকমল শেখের ছোট ভাই জাকির শেখের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমরা অনুষ্ঠান শেষে খিচুড়ি খাচ্ছিলাম। বাড়ির মহিলাদের শোর চিৎকারে এগিয়ে এসে দেখি আমার ভাই জখম অবস্থায় পড়ে আছে। শত্রুতার কারণে হইতো আমার ভাইকে খুন করা হয়েছে। হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বলেন হাসপাতালে আনার আগেই মৃত্যু হয়েছে।
চতুল ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক আহবায়ক জামাল মাতুব্বরের স্ত্রী লাখি বেগম বলেন, দুই বছর আগে হাসমত মাতুব্বর পক্ষের হামলায় আমার চাচাতো ভাসুর দেলোয়ার মাতুব্বর নিহত হয়। এ মামলা থেকে বাঁচতে তারা নিজেরাই নিজেদের লোককে খুন করে নাটক সাজিয়েছে। প্রশাসনের কাছে আমার অনুরোধ সরকারের গোয়েন্দা বিভাগ থেকে তদন্ত করলে প্রকৃত খুনিরা ধরা পড়বে। আমাদের ঘরবাড়িতে হামলা চালিয়ে ঘরে থাকা সকল মালপত্র নিয়ে গেছে বলেও তিনি জানান।
চতুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরীফ সেলিমুজ্জামান লিটু জানান, এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনা সত্যিই দুঃখজনক। খুন যারাই করুক না কেন তদন্তপূর্বক প্রকৃত অপরাধীদের কঠিন শাস্তি কামনা করছি। তবে শুধু শুধু রাজনৈতিকভাবে নিরীহ কাউকে যেন অযথা হয়রানি করা না হয়।
এ বিষয়ে বোয়ালমারী থানার ওসি নুরুল আলম বলেন, পরিস্থিতি শান্ত রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিবেশ আপাতত শান্ত আছে। তিনি বলেন লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হবে। থানায় এখনো পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করেনি।

আরও পড়ুন...

বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় দল থেকে বহিস্কার হচ্ছেন কৃষক লীগ নেতা লিটন মৃধা

বিশেষ প্রতিবেদক। ফরিদপুরের বোয়ালমারী পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় আদেশ অমান্য করে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় দল থেকে …

বোয়ালমারী পৌর নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দ

বোয়ালমারী (ফরিদপুর) প্রতিনিধি # ফরিদপুরর বোয়ালমারী পৌরসভা নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। বুধবার সকাল ১০টা …