6 Magh 1428 বঙ্গাব্দ বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০২২
Home » ফরিদপুরের সংবাদ » ফরিদপুর সদর » সিইসি’র নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন এলজিআরডি মন্ত্রী

সিইসি’র নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন এলজিআরডি মন্ত্রী

ষ্টাফ রিপোর্টার #
প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী আলহাজ্ব ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন। রবিবার দুপুরে ফরিদপুরে এক নির্বাচনী সভায় তিনি অভিযোগ করে বলেন, প্রধান নির্বাচন কমিশনার আমাকে ফোন করে বলেন, ফরিদপুর সদর আসনে নাকি প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী কামাল ইউসুফকে নির্বাচনের মাঠে নামতে দিচ্ছি না। আমি তাকে স্পষ্ট ভাষায় বলেছি, কোন প্রার্থী যদি মাঠে না নামেন তাহলে আমার করার কি আছে। অথচ আমি যখন সিইসিকে ফোন করি তিনি আমার ফোন ধরেন না। আমি এখনও মন্ত্রী অথচ তিনি আমার ফোনটি পর্যন্ত রিসিভ করেন না। বর্তমান সিইসি ফরিদপুর জেলার ডিসি যখন ছিলেন তখন চৌধুরী কামাল ইউসুফ মন্ত্রী ছিলেন। সিইসির সাথে কামাল ইউসুফের গোপন আঁতাত রয়েছে। চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ জনপ্রিয়তা হারিয়ে ভাল-মন্দ বোধশূন্য হয়ে পড়েছেন।তার নির্বাচনী প্রচারণায় দলীয় নেতা-কর্মী বা জনগণের কোন অংশগ্রহণ নেই। তাই তিনি পাগলের প্রলাপ বকা শুরু করেছেন। নির্বাচন কমিশনে আওয়ামী লীগ কর্মীদের বিরুদ্ধে কামাল ইউসুফকে নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা সৃষ্টি মিথ্যা অভিযোগ করছেন। নির্বাচন থেকে নিজে সরে যাওয়ার অজুহাত খুঁজছেন। তাই নির্বাচন কমিশনে তিনি মিথ্যা অভিযোগ করছেন। অভিযোগ পেয়ে সেটাকে গুরুত্ব দেওয়া হয়। আর নির্বাচন কমিশন থেকে আমার কাছে ফোন কওে জানতে চাওয়া হয়।
মন্ত্রীবলেন, এসব ব্যাপারে কথা বলার জন্য যখন আমি সিইসি কে এম নূরুল হুদাকে ফোন করি। তখন তিনি আমার ফোন ধরেন না। এমনকি ভদ্রতা বা সৌজন্য বশতঃ আমাকে ফিরতি ফোনও করেননি। তিনি প্রশ্ন করে বলেন, এটা কি নির্বাচন কমিশনের স্বজনপ্রীতি ও পক্ষপাতিত্ব নয়? ওদের সাথে নির্বাচন কমিশনের সাথে নিশ্চই কোন বিশেষ কোন গোপন আঁতাত আছে। তাই আমার ফোন ধরেন না। নির্বাচন কমিশনের এ ধরণের আচরণ মেনে নেওয়া যায়না।
মন্ত্রী বলেন, ফরিদপুর শহর একসময় সন্ত্রাসের জনপদ ছিল। এখন আর নেই অবস্থা নেই। ফরিদপুর শহর এখন শান্তির শহর। এই শহরে আর কাউকে অশান্ত করতে দেয়া হবেনা। ফরিদপুরে অনেক উন্নয়ন হয়েছে। আগামীতে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে আরো উন্নয়ন হবে। তিনি বলেন, নৌকা হচ্ছে উন্নয়নের মার্কা, নৌকা হচ্ছে গনতন্ত্রের প্রতিক। আগামী ৩০ ডিসিম্বর সবাইকে নৌকা প্রতিকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার আহবান জানান।
ফরিদপুর শহরের ১ ও ২নং কেন্দ্র কমিটির আয়োজনে নির্বাচনী সভায় সভাপতিত্ব করেন মনজুরুল হক। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহা, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ঝর্না হাসান, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজমুল হাসান লেভী, যুবলীগের আহবায়ক এএইচএম ফোয়াদ, শহর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি, পৌরমেয়র শেখ মাহতাব আলী মেথু, শহর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক বরকত ইবনে সালাম, শ্রমিক লীগের সভাপতি আক্কাস হোসেন, শ্রমিক নেতা গোলাম মোঃ নাছির, ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক সাইফুল ইসলাম প্রমুখ।

আরও পড়ুন...

ফরিদপুরে বীরঙ্গনা, মুক্তিযোদ্ধা ও দুঃস্থদের বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবা

কন্ঠ রিপোর্ট # ফরিদপুরে বীরঙ্গনা, মুক্তিযোদ্ধা ও দুঃস্থ-অসহায়দের বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেছে ‘১৯৭১ আমরা …

ফরিদপুরে ফোরাম-৮৬ বুয়েট এর উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরন

কন্ঠ রিপোর্ট। ফরিদপুরে ফোরাম-৮৬ বুয়েট এর উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরন করা হয়েছে। সারাদেশব্যাপী শীতার্তদের …