নগরকান্দা

সালথায় ইউপি সদস্যের ইয়াবা সেবনের ভিডিও ভাইরাল

সালথা প্রতিনিধি।
ফরিদপুরের সালথায় এক ইউপি সদস্যের ইয়াবা সেবনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত থেকে ফেসবুকে ইয়াবা সেবনের ভিডিও প্রকাশের পর সমালোচনার ঝড় ওঠে। ভাইরাল হওয়া ইউপি সদস্যের নাম মঞ্জুরুল ইসলাম। তিনি উপজেলার রামকান্তুপুর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য ও বাহিরদিয়া গ্রামের বাদশা মোল্যার ছেলে।

বৃহস্পতিবার রাতে ওই ইউপি সদস্যের নিজ গ্রাম বাহিরদিয়ার সাইফুল ইসলাম নামে এক যুবক তাঁর ফেসবুক আইডিতে ইয়াবা সেবনের একটি ভিডিওটি আপলোড দেন। এ সময় তিনি তার স্ট্যাটাসে লেখেন- ফরিদপুর জেলা প্রশাসকের দৃষ্টি আকর্ষন করছি। ফরিদপুরের সালথা উপজেলার ১ নং রামকান্তুপুর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম ওরফে ( ইয়াবা স¤্রাট মঞ্জু) নিজের ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে অবৈধ অর্থ অপার্জনের লক্ষ্যে গাঁজা ও সর্বনাশা ইয়াবার ব্যবসা করে এলাকার যুব সমাজকে দিন দিন ধবংসের মূখে ঠেলে দিচ্ছে। তাই মাননীয় জেলা প্রশাসক মহোদয়কে সবিনয় অনুরোধ করছি আপনি অতি দ্রুত ইয়াবা স¤্রাট মঞ্জু মেম্বারের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করে এলাকার যুব সমাজকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করুন। ইয়াবা সেবনের ভিডিওসহ এ স্ট্যাাটাসে ৫৩ জন কমেন্টস বক্সে মন্তব্য করেন। শেয়ার করে ৫৭ জন। ভিডিওটি ফলো করেন ২ হাজারেরও বেশি মানুষ।

এবিষয়ে ইউপি সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম মুঠোফোনে বলেন, যে ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল করা হয়েছে, সেই ভিডিওটি আমার নয়। আমার গ্রামের প্রতিপক্ষের এক যুবক এই ভিডিওটি শেয়ার করে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তবে রামকান্তুপুর ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফ আলী লিটু বলেন, আমার ইউনিয়নের এক ইউপি সদস্যের ইয়াবা সেবনের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে বলে আমি শুনেছি। তবে এ বিষয় আমি কিছু বলতে পারবো না।

সালথা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মাদ হাসিব সরকার বলেন, আমার ম্যাসেঞ্জারে কয়েক ব্যক্তি ওই ভিডিওটি পাঠিয়েছে। আমি দেখেছি। তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *