ফরিদপুর সদর

মেধাবী শিক্ষিত যুবক সিরাজ বাঁচতে চায়


বিশেষ প্রতিবেদক।
দরিদ্র পরিবারে জন্ম নেওয়া মেধাবী ও শিক্ষিত যুবক মোঃ সিরাজুল ইসলাম এখন বিনা চিকিৎসায় মরতে বসেছেন। হিপ জয়েন্টটি ধীরে ধীরে ড্যামেজ হয়ে যাচ্ছে।তার। বেঁচে থাকার জন্য জরুরী ভিক্তিতে হিপ জয়েন্ট রিপ্লেসমেন্ট দরকার। কিন্তু চিকিৎসা করাতে গিয়ে সহায় সম্বল হারিয়ে সে ও তার পরিবার এখন নিঃস্ব।
ফরিদপুর সদর উপজেলার গেরদা ইউনিয়নের জোয়াইড় খালেক বাজার এলাকার হতদরিদ্র খলিলুর রহমানের ছেলে সিরাজুল ইসলাম। বোন ও নিজের লেখাপড়া এবং সংসারের হাল ধরতে বেছে নেন প্রাইভেট পড়ানোর কাজ। কিন্তু তাতে সংসারের হাল ধরতে হিমশিম খেতে হচ্ছিল তাকে। পরে প্রাইভেট পড়ানোর পাশাপাশি কাজ করেন রাজমিস্ত্রির। রাজমিস্ত্রির কাজ ও নিজে প্রাইভেট পড়ানোর সুবাধে বাবা-মায়ের সংসারের দুঃখ লাঘবের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন সিরাজুল ইসলাম। ইংরেজিতে মাস্টার্স করা এ মেধাবী যুবকটি এখন কঠিন রোগে আক্রান্ত হয়ে মরতে বসেছেন। ১৩/১৪ বছর আগে ডান পায়ের এবং পরে বাম পায়ের হিফ জয়েন্ট ধীরে ধীরে ড্যামেজ হতে থাকে। ফলে চলাফেরা একেবারেই কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। তারপরও নিজের চিকিৎসার খরচ, ছোট বোনের পড়ালেখা ও দরিদ্র কৃষক বাবাকে সংসারে আর্থিক ভাবে সহযোগীতা করতে হচ্ছে তাকে। প্রাইভেট পড়ানোর পাশাপাশি রাজমিস্ত্রির কাজও করতে হচ্ছে তাকে। শারিরিক ভাবে খুব অসুস্থ্য থাকা সত্বেও নিজে বেঁচে থাকতে এবং বোনের পড়ালেখা চালিয়ে যেতে কষ্টের মধ্যদিয়ে সে কাজ করতে বাধ্য হচ্ছে। বর্তমানে তার চিকিৎসার ব্যায় বেড়ে যাওয়ায় নিজে আর তা বহন করতে পারছেন না। তাছাড়া চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন দ্রুতই হিফ জয়েন্ট রিপ্লেসমেন্ট করা না গেলে সে মরনের দিকে ধাবিত হবে। এরই মাঝে চিকিৎসকের পরামর্শে ভারতে গিয়ে চিকিৎসা নিয়ে আসেন। সেখান থেকে আসার পর মেডিসিন নিয়ে কয়েক বছর ভালো ছিলেন। বর্তমানে মাঝে মধ্যেই কারো সাহায্য ছাড়া চলাফেরা করতে পারেন না। এখন জরুরী ভিক্তিতে অপারেশনের কথা বলেছেন চিকিৎসকেরা। ভারতে গিয়ে দুটি হিফ জয়েন্ট রিপ্লেসমেন্ট করার জন্য চিকিৎসক অপারেশনের তারিখ দিয়েছেন। এজন্য দরকার বিপুল পরিমান টাকা। যা তার পরিবারের পক্ষে যোগানো সম্ভব নয়। এ অবস্থায় সমাজের হৃদয়বান, স্বচ্ছল ব্যক্তিদের সহযোগীতা কামনা করেছেন শিক্ষিত যুবক সিরাজুল ইসলাম। সকলের সহযোগীতায় সিরাজুল ইসলাম বেঁচে থেকে তার বোনসহ পরিবারের সদস্যদের দুঃখ-কষ্ট দুর করতে পারবেন বলে আশা তার।
সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা- মোঃ সিরাজুল ইসলাম। একাউন্ড নং-০২০০০০৯১৮৯২৯০, অগ্রণী ব্যাংক, বাস ষ্ট্যান্ড শাখা, ফরিদপুর। মোবাইল নং-০১৭৫৬-৩৪২০৬০ (বিকাশ)।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *