অপরাধ ফরিদপুর সদর

মাচ্চরে বিরোধের জেরে ঘরে পেট্রোল ঢেলে আগুন দেবার অভিযোগ

বিশেষ প্রতিবেদক।
ফরিদপুর সদর উপজেলার মাচ্চর ইউনিয়নের দয়ারামপুর গ্রামের জনৈক লিয়াকত শেখের বাড়ীতে হামলা চালিয়ে লুটপাট শেষে ঘরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেবার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আগুনে পুড়ে গেছে ঘরের সমস্ত আসবাবপত্র। এছাড়া হামলাকারীরা ঘরের মালামাল লুটপাট করে নিয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় কোতয়ালী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন বাড়ীর কেয়ারটেকার শহিদুল ইসলাম।
অভিযোগে জানা গেছে, এলাকার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে লিয়াকত শেখের সাথে প্রতিবেশী শাখাওয়াত শেখ, জিয়া শেখ, ফিরোজ শেখ গংদের সাথে বিরোধ চলে আসছে। এ বিরোধকে কেন্দ্র করে গত ৩১ আগষ্ট মোঃ শেখ নামের একজন খুন হয়। এ ঘটনার পর কয়েক দফা বাড়ী ঘরে হামলা চালায় প্রতিপক্ষের লোকজন। এ খুনের মামলায় আসামী করা হয় জাহিদ শেখ, লিয়াকত শেখসহ কয়েক জনের নামে। খুনের মামলার পর থেকে প্রতিপক্ষের হামলার ভয়ে ঘর-বাড়ী ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নেয় জাহিদ শেখ, লিয়াকত গংয়েরা। বাড়ীতে কেউ না থাকার সুবাদে গত ৯ অক্টোবর সকাল ছয়টার দিকে প্রতিপক্ষের লোকজন লিয়াকত শেখ ও জাহিদ শেখের ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে। এসময় তারা ঘরের স্বর্নালংকার, নগদ টাকা, গরু নিয়ে যায়। পরে তারা ঘরের মধ্যে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। আগুনে ঘরের সমস্ত মালামাল পুড়ে যায়। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে দমকল বাহিনী ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। এ ঘটনার পর বাড়ীর কেয়ারটেকার শহিদুল ইসলাম কোতয়ালী থানায় ১৩ জনের নামউল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় ১ লাখ ৪০ হাজার টাকার মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করেছেন।
এ বিষয়ে নিহতের ভাই আব্দুল ওহাব জানান, বাড়ী ঘরে লুটপাট ও আগুন দেবার বিষয়টি সাজানো। আমাদের উপর মিথ্যা অভিযোগ এনে মামলা দেওয়া হয়েছে। এসব ঘটনার সাথে আমাদের কোন সংশ্লিষ্টতা নেই।
এ বিষয়ে কোতয়ালী থানা পুলিশ জানায়, বাড়ীতে হামলা ও আগুন দেবার ঘটনায় একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *