ভাঙ্গা

ভাঙ্গায় বিলের পানি থেকে মহিলার বস্তাবন্দী লাশ উদ্বার

ফরিদপুর (ভাঙ্গা) প্রতিনিধি # ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার হামিরদী ইউনিয়নের সিংগারিয়া গ্রামের বিল থেকে ভাসমান অবস্থায় সোমবার গভীর রাতে মহিতুন বেগম (৪০) নামের এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে ভাঙ্গা থানা পুলিশ। নিহত মহিতুন বেগম পাশ্ববর্তি নগরকান্দা উপজেলার কান্দি গ্রামের নিজাম তালুকদারের স্ত্রী। সে এলাকাবাসির কাছে বিয়ের ঘটক হিসাবেই বেশ পরিচিত। এঘটনায় নিহতের ছেলে শাহজালাল বাদী হয়ে মঙ্গলবার ভাঙ্গা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ২ জনকে আটক করেছে। মঙ্গলবার সকালে পুলিশ লাশ ময়না তদন্তের জন্য ফরিদপুর মর্গে প্রেরন করেছে। ভাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক আবদুল্লাহ আজিজ জানান, ভাঙ্গা উপজেলার হামিরদী ইউনিয়নের সিংগারিয়া গ্রামের মনির হোসেনের পুত্র শান্তর কিছুদিন আগে তার মাধ্যমে বিয়ে হয়। ঈদের দিন (শনিবার) দুপুরে মনিরের বাড়িতে মহিতুন বেগম তার ঘটকালীর সম্মানী চাইতে গিয়ে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য ও ঝগড়ার সৃষ্ঠি হয়। এরপর থেকে ঐ গৃহবধুর আর কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিলনা। সোমবার দিবাগত রাতে জেলেরা মাছ ধরতে বিলের মধ্যে যায়। এসময়ে জেলেদের লাইটের আলোতে ভাসমান অবস্থায় বস্তাবন্দী একটি লাশ দেখতে পায়। তারা বিষয়টি পাশ্ববর্তী ভাঙ্গা থানা পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ ও ভাঙ্গা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা রাতেই লাশটি উদ্বার করে থানায় নিয়ে আসে। নিহতের পরিবারের দাবী মনিরই মহিতুনকে হত্যার পর পানিতে ডুবিয়ে রেখেছিল। এ ব্যাপারে ভাঙ্গা থানার ওসি মোঃ শফিকুর রহমান বলেন,মামলার এজাহার ভুক্ত আসামিদের ধরার জন্য পুলিশ কাজ করছে।অচিরেই আসামীদের গ্রেফতার করতে পুলিশ সক্ষম হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *