নগরকান্দা

বিয়ের প্রলোভনে তরুনীকে ধর্ষন, আটক-২

সালথা প্রতিনিধি।
ফরিদপরের সালথায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ২৫ বছর বয়সী এক তরুনীকে ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত শেখ আক্কাস (৪০) ও ধর্ষনের সহায়তাকারী মাসুদ রানাকে আটক করেছে। আটককৃত শেখ আক্কাস ফরিদপুর সদর উপজেলার ইকরি গ্রামের মোহন শেখের ছেলে এবং মাসুদ রানা সালথা উপজেলার গট্রি ইউনিয়নের ভাবুকদিয়া গ্রামের আবু তালেবের ছেলে।
মামলার বিরবনে জানা গেছে, নীলফামারী জেলার ডিমলা থানা এলাকার এক তরুনী ও ফরিদপুরের আক্কাস সাভারের নবীনগর এলাকার একটি বিস্কুট ফ্যাক্টরীতে কাজ করতো। কাজের সূত্র ধরে তাদের মধ্যে পরিচয় হয়। গত ২৩ আগষ্ট বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আক্কাস উক্ত তরুনীকে ফরিদপুরের সালথা উপজেলার ভাবুকদিয়া গ্রামের মাসুদ রানার বাড়ীতে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে ঐ রাতে আক্কাস তরুনীকে জোরপূর্বক ধর্ষন করে। পরদিন তরুনী বিয়ের কথা বললে তাকে জোর করে ঢাকায় পাঠানোর চেষ্টা করে আক্কাস। ফরিদপুর বাসস্ট্যান্ডে আসার পর কয়েকজনের পরামর্শে তরুনীটি সালথা থানায় একটি মামলা করে। মামলার পর সোমবার পুলিশ ধর্ষক আক্কাস ও সহযোগী মাসুদ রানাকে আটক করে।
সালথা থানার ওসি মোহাম্মাদ আলী জিন্নাহ জানান, তরুনীর অভিযোগেরর ভিক্তিতে ধর্ষক শেখ আক্কাস ও ধর্ষনের সহায়তাকারি মাসুদ রানাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আটককৃতদের মঙ্গলবার ফরিদপুর বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য তরুনীকে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *