খেলাধুলা চরভদ্রাশন

ফুটবল নিয়ে মাঠ মাতালেন এমপি নিক্সন চৌধুরী

কামরুজ্জামান সোহেল #
একটি ফুটবলে টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলার প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ফরিদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মুজিবর রহমান চৌধুরী নিক্সন। খেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে হঠাৎ দেখা গেলো ১০ নম্বর সাদা জার্সি গায়ে জড়িয়ে মাঠে নেমে গেলেন এমপি নিক্সন চৌধুরী। তাকে মাঠে দেখেই উপস্থিত হাজারো দর্শকের হাত তালিতে গোটা এলাকা মুখরিত হয়ে উঠলো। সবাই মনে করেছিলেন এমপি নিক্সন চৌধুরী মনে হয় উৎসাহ দিতে কিংবা ফাইনাল খেলার উদ্বোধন করতে মাঠে গিয়েছেন। কিন্তু না সবার ধারনা ভুল প্রমান করে তিনি প্রথমার্ধের পুরোটা সময় মাঠে ছিলেন। চরভদ্রাসন উপজেলায় জরুরী প্রোগ্রাম থাকায় তিনি পুরোটা সময় মাঠে থাকতে পারেননি। ফাইনাল খেলায় আমির খাঁ স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে মাঠে দেখা গেলো এমপি নিক্সন চৌধুরীকে। দুর্দান্ত ফুটবল খেলে উপস্থিত দর্শকদের মন জয় করে নিলেন তরুন এ সংসদ সদস্য। প্রথমার্ধের পুরোটা সময় তিনি আমির খাঁ স্পোটিং ক্লাবের হয়ে খেলে গেলেন। এমপি নিজে গোল করতে না পারলেও তার দুর্দান্ত কৌশলী খেলায় শেষ পর্যন্ত ৩-০ গোলে হারান প্রতিপক্ষ ইকরাম মাতুব্বরের ডাঙ্গী স্পোটিং ক্লাবকে। এমপির খেলা দেখে বিমোহিত হন উপস্থিত হাজারো নারী, পুরুষ দর্শকেরা। একজন এমপি নিজে মাঠে নেমে ফুটবল খেলে তরুন প্রজন্মকে একটি বার্তা দিয়ে গেলেন বলে স্থানীয় মুরব্বীরা জানান। অনুষ্ঠানস্থল থেকে বিদায় নেবার আগে তিনি তরুন-যুবকদের উদ্দেশ্যে বলে যান, মাদক ও সন্ত্রাস কখনো সুফল বয়ে আনতে পারেনা। খারাপ অভ্যাস বাদ দিয়ে খেলাধূলার প্রতি নজর দিতে হবে। তিনি বলেন, আমার গ্রামের বাড়ীতে একটি মিনি স্টেডিয়াম করা হয়েছে। সেখানে প্রতিটি ইউনিয়নের দলকে নিয়ে খেলার আয়োজন করা হবে।
ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলার দূর্গম পদ্মার চর চরহরিরামপুর ইউনিয়নের চৌধুরী বাজার সংলগ্ন মাঠে রবিবার বিকেলে ছমির বেপারী ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। এ টুর্নামেন্টে ১২টি দল অংশ নেয়। রবিবারের ফাইনাল খেলা দেখতে ফরিদপুর, সদরপুর, ভাংগা ও চরভদ্রাসন উপজেলার হাজার হাজার মানুষ ট্রলারে করে পদ্মার দুর্গম চরে যান ফুটবল খেলা দেখতে। ফুটবল খেলায় নারী দর্শকের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। ফাইনাল খেলায় বিজয়ী ও বিজিত দলকে টেলিভিশন পুরস্কার দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *