ফরিদপুর সদর

উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় নৌকায় ভোট দিন- শেখ হাসিনা

কামরুজ্জামান সোহেল #
উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হলে আগামীতেও আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আসতে হবে এবং সকলকে নৌকায় ভোট দেবার আহবান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নির্বাচনী প্রচারনার দ্বিতীয় দিনে ফরিদপুরের সদর উপজেলার কোমরপুর আব্দুল আজিজ ইনষ্টিটিউট মাঠে আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় তিনি এ আহবান জানান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, নৌকা মার্কায় ভোট দিলেই দেশের উন্নয়ন হয়। নৌকা হচ্ছে শান্তির প্রতিক, নৌকা হচ্ছে উন্নয়নের প্রতিক। বিএনপি সরকারের ব্যাপক সমালোচনা করে শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি যখনই ক্ষমতায় ছিল তখন দেশ দুর্নীতিতে বারবার চ্যাম্পীয়ন হয়েছিল। বিএনপি নেতাদের দুর্নীতির কারনে দেশ অন্ধকারে নিমজ্জিত ছিল। জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসের রাজত্ব ছিল। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে দুর্নীতিমুক্ত দেশ গড়তে কাজ করেছে। দেশে এখন আর সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ নেই। তিনি বলেন, মাদকের ভয়াবহতা থেকে যুবসমাজকে বাঁচাতে হবে। এজন্য আপনাদের সকলের সহযোগীতা চাই। আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে পুনরায় ক্ষমতায় আনতে হবে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না আসলে দেশ আবারো পিছিয়ে পড়বে। উন্নয়ন থমকে যাবে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আগামীতে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে ফরিদপুরকে বিভাগ করা হবে।
বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় ফরিদপুর কোতয়ালী আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ফরিদপুর-৩ (সদর) আসনের প্রার্থী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সমর্থনে আয়োজিত বিশাল এ নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
কোতয়ালী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে এবং জেলা যুবলীগের আহবায়ক এএইচএম ফোয়াদের সঞ্চালনায় জনসভায় বক্তৃতা করেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আব্দুর রহমান এমপি, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মোল্লা আবু কাউসার, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহা, যুগ্ম সম্পাদক ঝর্না হাসান, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজমুল হাসান লেভী, সাধারন সম্পাদক বরকত ইবনে সালাম, থানা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সামচুল আলম, শ্রমিক লীগের সভাপতি আক্কাস হোসেন, ফাহাদ বিন ওয়াজেদ ফাইন, নিশান মাহমুদ শামীম, সাইফুল ইসলাম। জনসভায় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোটবোন শেখ রেহানা, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, আফম বাহাউদ্দিন নাসিম, আহম্মদ হোসেন, যুবলীগের সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরী, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি লিয়াকত সিকদার।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরো বলেন, আগুন দিয়ে যারা মানুষকে পুড়িয়ে মেরেছে তারা ভোট পাওয়ার অধিকার রাখেনা। তাদের নেত্রী দুর্নীতির দায়ে এখন সাজা খাটছেন। দেশের সম্পদ বিদেশে পাচার করেছেন। দুর্নীতির মাধ্যমে জিয়া পরিবার অগাধ সম্পদের মালিক হয়েছে। এতিমের টাকাও রেহাই পায়নি। এতিমের টাকাও তিনি মেরে খেয়েছেন। এতিমের টাকা যারা আত্মসাৎ করেন তাদের বাংলার মানুষ কখনো ভোট দেবেনা। আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে নৌকা প্রতিকে ভোট দেবার আহবান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ফরিদপুরের উন্নয়নের দায়িত্ব আমি নিয়েছিলাম। আমি সেই কথা রেখেছি। ফরিদপুরে অনেক উন্নয়ন হয়েছে। আগামীতে ক্ষমতায় গেলে শুধু ফরিদপুর নয়, দক্ষিনাঞ্চলের উন্নয়নে অনেক কাজ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *