22 Ashar 1429 বঙ্গাব্দ বুধবার ৬ জুলাই ২০২২
Home » ফরিদপুরের সংবাদ » ফরিদপুর সদর » শিবরামপুরে পাল্টাপাল্টি হামলার অভিযোগ

শিবরামপুরে পাল্টাপাল্টি হামলার অভিযোগ


কামরুজ্জামান সোহেল।
ফরিদপুরের সদর উপজেলার মাচ্চর ইউনিয়নের শিবরামপুর এলাকায় অবস্থিত আমিরাবাদ রেল ষ্টেশনে পাথর লোড আনলোডের দখল নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে গোটা এলাকা। ইতোমধ্যেই বেশ কয়েকবার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সর্বশেষ গত ৫ জুন পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনা ঘটেছে। একটি পক্ষ দখল করতে গিয়ে হামলা ভাংচুর চালায় বলে অভিযোগ করেছে। অপর পক্ষের তরফ থেকে বলা হয়েছে, ইউপি নির্বাচনে মেম্বার পদে উপ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পক্ষে ভোট চাইতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন তারা। এ হামলায় আহত হয়েছে ফরিদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সভাপতি জহুরুল ইসলাম জনি। এ ঘটনায় পুলিশ ও স্থানীয় আলাউদ্দিন মোল্লা বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ দুইজনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।
স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ভারত থেকে আমদানীকৃত পাথর ফরিদপুর রেল ষ্টেশন ও সদর উপজেলার মাচ্চর ইউনিয়নের শিবরামপুর বাজার এলাকার আমিরাবাদ রেল ষ্টেশনে নামানো হতো। এ দুইটি স্থানে প্রভাবশালী একটি মহল পাথর লোড আনলোডের সাথে জড়িত ছিল। এখান থেকে প্রতিদিন কয়েক লাখ টাকার চাঁদা উঠানো হতো। দুই বছর আগে আওয়ামী লীগে দুর্নীতি বিরোধী শুদ্ধি অভিযান শুরু হবার পর বেশ কিছু প্রভাবশালী নেতা আটক হবার পর পাথর লোড আনলোডে চাঁদাবাজী কমে যায়। কিন্তু কয়েক মাস পর ফের প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় ফের চাঁদাবাজী শুরু হয়। প্রতিদিন পাথর লোড আনলোড করতে গিয়ে ব্যবসায়ী ও ট্রাকের চালকদের কাছ থেকে চাঁদা উঠানো হয়। প্রতিদিন ১ থেকে দেড় লাখ টাকার চাঁদা উঠে বলে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে। সম্প্রতি, আগে যারা আমিরাবাদ ষ্টেশনের পাথর ব্যবসা নিয়ন্ত্রন করতো তাদের হটিয়ে সেখানে জায়গা করে নেয় আরেকটি পক্ষ। বর্তমানে আলাউদ্দিন মোল্লা নামের এক ব্যক্তি পাথর লোড আনলোডের কাজ পায়। তিনিই সেখানে তার লোকজন নিয়ে পাথর লোড আনলোডের কাজ করছেন। অভিযোগ উঠেছে, এ পাথর ব্যবসাকে কেন্দ্র করে গত কয়েক মাস ধরে এখানে একটি শক্তিশালী সিন্ডিকেট বাহিনী গড়ে উঠেছে। এই বাহিনীটি আমিরাবাদ রেল ষ্টেশনের নিয়ন্ত্রন বজায় রাখতে নানা অপতৎপরতা চালিয়ে আসছিল। গত ৫ জুন শিবরামপুর বাজারে দুইপক্ষের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। রেল ষ্টেশনের পাথর লোড আনলোডের ঠিকাদার আলাউদ্দিন মোল্লা অভিযোগ করেন, তার নিয়ন্ত্রনে থাকা ব্যবসাটি ছিনিয়ে নিতে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জনির নেতৃত্ব তার উপর হামলা চালানো হয়। ভাংচুর করা হয় আওয়ামী লীগের অফিস। হামলা করে লুটপাট চালানো হয়। অপরদিকে, জনির পক্ষের লোকজন জানান, জনির উপর পরিকল্পিত ভাবে হামলা চালানো হয়েছে। জনির ভাই রনি জানান, মাচ্চর ইউনিয়ন পরিষদের ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে কয়েকদিন পর। সেই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে প্রচারনার জন্য জনিসহ অর্ধশতাধিক লোক শিবরামপুর বাজারে গেলে তার ভাইকে আলাউদ্দিনের লোকজন জোরপূর্বক ধরে নিয়ে আলাউদ্দিনের চেম্বারে আটকে রেখে মারপিট করে। পরে উত্তেজিত লোকজন সেই চেম্বার থেকে জনিকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। ভোটের বিষয়টি নিয়ে একটি পক্ষ পাথর ব্যবসার দখল নিতে হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করে। এ ঘটনায় পুলিশ ও আলাউদ্দিন মোল্লা বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছে। সেই মামলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জহুরুল ইসলাম জনি ও আওয়ামী লীগের সমর্থিত মেম্বার প্রার্থী আছিরুদ্দিনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।
স্থানীয়দের অভিযোগ, পাথর ব্যবসাকে কেন্দ্র করে প্রায়ই আমিরাবাদ এলাকায় সন্ত্রাসীদের মহড়া দিতে দেখা যায়। তারা বিভিন্ন সময় এলাকায় ভীতিকর অবস্থার সৃষ্টি করে। সর্বশেষ হামলার ঘটনাটি পরিকল্পিত বলে জানান তারা।
এদিকে, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জনির উপর হামলা ও পাল্টা হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের মাঝে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। দুইপক্ষের লোকজনই মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে। যে কোন মুহুর্তে বড় ধরনের সংঘর্ষের আশংকা করছেন স্থানীয়রা।
কোতয়ালী থানার ওসি এম এ জলিল সাংবাদিকদের জানান, হামলার ঘটনায় দুটি মামলা হয়েছে। এ ঘটনার সাথে যারাই জড়িত রয়েছে তাদের সকলকেই আইনের আওতায় আনা হবে।

আরও পড়ুন...

সিলেট-সুনামগঞ্জে ত্রাণ নিয়ে গেল ‘ব্লাড লিংক ফরিদপুর’

কামরুজ্জামান সোহেল। সিলেট ও সুনামগঞ্জের বন্যা কবলিত অসহায় মানুষের মাঝে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিতে ত্রাণ …

মহানবীকে অবমাননার প্রতিবাদে পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ সমাবেশ

স্টাফ রিপোর্টার মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা;) কে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্যের প্রতিবাদে তীব্র রোদে পুড়ে ও …