26 Srabon 1427 বঙ্গাব্দ সোমবার ১০ অগাস্ট ২০২০
Home » ফরিদপুরের সংবাদ » ফরিদপুর সদর » ডিক্রিরচর ইউপি চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন

ডিক্রিরচর ইউপি চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন

বিশেষ প্রতিবেদক।

ফরিদপুর সদর উপজেলার ডিক্রিরচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, যুবলীগ নেতা মেহেদী হাসান মিন্টু রবিবার বেলা ১১টায় সিএন্ডবি ঘাট এলাকায় তার নিজ অফিসে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি লিখিত অভিযোগে জানান, তার পরিবার দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। গত ইউনিয়ণ পরিষদের নির্বাচনে তিনি দলীয় প্রতিক নৌকা পান। কিন্তু ষড়যন্ত্রকারীদের সাথে হাত মিলিয়ে সিদ্দিকুর রহমান ক্ষমতার অপব্যবহার করে এবং টাকার মাধ্যমে বিএনপি থেকে আসা ব্যক্তিকে নৌকার মনোনয়ন পাইয়ে দেন। নির্বাচনের আগে আমার বিভিন্ন গনসংযোগে হামলা চালায় সিদ্দিক বাহিনী। তারা আমার ভাই আলমগীর ফকিরসহ কয়েকজনকে হত্যার চেষ্টা করে। নির্বাচনে স্থানীয়দের ভালোবাসার কারনে সে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন। নির্বাচনের পর ষড়যন্ত্র অব্যাহত থাকে। আমার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা দায়ের করে হয়রানী করতে থাকে। সেই মামলায় আমার ভাইয়েরা অসংখ্যবার জেল খেটেছে। ক্ষমতা আর সন্ত্রাসী বাহিনীর দাপটে আমার ইউপির সাধারন সদস্যদের জিম্মি করে আমার বিরুদ্ধে অনাস্থা এনে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করে। যা তারা প্রমান করতে পারেনি। পরবর্তীতে বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে সেই প্রক্রিয়া স্থগিত রয়েছে। পরবর্তী পর্যায়ে এই চক্রটি ধারাবাহিকতায় নানা মিথ্যাচার, অপপ্রচার চালিয়ে আমাকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করতে থাকে। আমি নৌবন্দর অধিদপ্তরের তত্বাবধানে পরিচালিত ফরিদপুর সিএন্ডবি ঘাট বন্দর ১ কোটি ২০ লক্ষ টাকায় বৈধভাবে ইজারা পাই। কিন্তু অর্থ আর সন্ত্রাসী বাহিনীর জবরদখলের মাধ্যমে ঘাট ইজারাটি আমাকে বুঝিয়ে না দিয়ে উল্টো আমার উপর সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়। নৌবন্দর কতৃপক্ষ চেষ্টা করেও আমাকে ঘাটটি বুঝিয়ে দিতে পারেনি। পরবর্তীতে আমি উচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হলে বিজ্ঞ আদালত সিএন্ডবি ঘাট বন্দর বুঝিয়ে দেবার নির্দেশ দিলেও তা কার্যত বাস্তবায়ন করতে পারেনি কতৃপক্ষ। স্থানীয় রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তার করে সিদ্দিক বাহিনী ঘাটটি অবৈধভাবে দখলে রাখে। শুধু জোর পূর্বক ঘাট দখলই নয়, সে সিএন্ডবি ঘাট এলাকার বহু মানুষের জমি অবৈধভাবে দখল করে রেখেছে। সিদ্দিক বাহিনীর মদদে ডিক্রিরচর গ্রাম আদালত কার্যক্রম পরিচালনার সময় আমার উপর হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা হয়। এছাড়া বিভিন্ন ভাবে আমাকে সামাজিক ভাবে হেয় করতে নানা ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে সিদ্দিকুর রহমান। চেয়ারম্যার মেহেদী হাসান মিন্টু আরো বলেন, আইন শৃংখলারক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা তদন্ত করলে সন্ত্রাসী ও তাদের গডফাদারদের থলের বেড়াল বেরিয়ে আসে। প্রশাসনের কাছে দাবী জানিয়ে তিনি বলেন, দ্রুত তদন্তের মাধ্যমে এসব সন্ত্রাসী কাজের সাথে যারা জড়িত তাদের আইনের আওতায় এনে বিচার করতে হবে। সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক অর্থ সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান খান, স্থানীয় ডিক্রিরচর ইউনিয়নের বেশ কয়েকজন মুরব্বী উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন...

বিএনপি নেতা মিনানের সুস্থ্যতায় দোয়া কামনা

বিশেষ প্রতিবেদক। ফরিদপুর জেলা বিএনপির বিলুপ্ত কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান মিনান …

সাহিত্য পরিষদের উদ্যোগে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মৃত্যু বার্ষিকী পালিত

ফরিদপুর সাহিত্য পরিষদের উদ্যোগে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭৯ তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার …