30 Ashar 1427 বঙ্গাব্দ মঙ্গলবার ১৪ জুলাই ২০২০
Home » অপরাধ » সদরপুরে বৃদ্ধা মহিলাকে কুপিয়ে জখম

সদরপুরে বৃদ্ধা মহিলাকে কুপিয়ে জখম

ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার চর মানাইর ইউনিয়নের চর আড়িয়াল খাঁ গ্রামে সন্ত্রাসীদের হামলায় মারাত্বক ভাবে আহত হয়েছেন লাইলী বেগম নামের ৭১ বছর বয়সী একবৃদ্ধাসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা। ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার দুপুরে। এ ঘটনায় সদরপুর থানায় মামলা হলেও সন্ত্রাসীদের কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। এদিকে, হামলা ও মামলার পর সন্ত্রাসীরা মামলা তুলে তুলে প্রাননাশের হুমকি দিচ্ছে। ফলে পুনরায় হামলার আশংকায় লাইলী বেগম ও তার পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।
হামলার শিকার হওয়া পরিবার ও থানা সূত্রে জানা গেছে, চর আড়িয়াল খাঁ গ্রামের মোঃ জব্বার বেপারীর পরিবারের সাথে পূর্ব শক্রুতা ধরে একই গ্রামের ইসমাইল মাতুব্বর, মফিজুল বেপারী, মিজান বেপারী গংদের বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে সোমবার দুপুরে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দেশীয় অস্ত্রশ্রস্ত্র নিয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন হামলা চালায় জব্বার বেপারীর বাড়ীতে। এসময় হামলাকারীরা জব্বার বেপারীর পুত্র দেলোয়ার বেপারী ও তার পরিবারের সদস্যদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। একপর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে তর্কাতর্কি শুরু হয়। এসময় ইসমাইল মাতুব্বরের নির্দেশে প্রতিপক্ষের লোকজন দেলোয়ার বেপারীর মা লাইলী বেগমকে হত্যার উদ্দেশ্যে রামদা, ছ্যানদা নিয়ে হামলা করে। হামলাকারীরা লাইলী বেগমের শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে মারাত্বক ভাবে জখম করে। হামলাকারীদের প্রতিরোধ করতে গিয়ে লোহার রড, বাঁশের লাঠিতে আহত হন লাইলী বেগমের স্বজনেরা। হামলাকারীরা কয়েকটি ঘর ভাংচুর করে। তারা ঘরে থাকা নগদ টাকা, স্বর্নালংকারসহ মূল্যবান জিনিষপত্র নিয়ে যায়। যার আনুমানিক মূল্য কয়েক লাখ টাকা। লাইলী বেগম ও তার পরিবারের সদস্যদের চিৎকারে আশে পাশের লোকজন এগিয়ে এলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে মারাত্বক আহত অবস্থায় স্থানীয়রা লাইলী বেগমকে শিবচর উপজেলার একটি হাসপাতালে ভর্তি করে। অন্যদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়। এ ঘটনার পর সদরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় আসামী করা হয় ইসমাইল মাতুব্বর, মফিজুল বেপারী, মিজান বেপারী, জহুর বেপারী, সাইফুল বেপারী, সিরাজ মাতুব্বর, কামাল মাতুব্বর, জামাল মাতুব্বর, খলিল মাতুব্বর, মান্নান মাতুব্বরসহ আরো কয়েকজনকে। মামলা দায়েরের পর সন্ত্রাসীরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ইঠে। তারা মামলা তুলে না নিলে দেলোয়ারসহ তার পরিবারের সদস্যদের এলাকা থেকে উচ্ছেদের পাশাপাশি হত্যারও হুমকি দিয়েছে। মামলার বাদী দেলোয়ার বেপারী জানান, তার মাসহ কয়েকজনকে আসামীরা কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্বক ভাবে আহত করেছে। তার মা লাইলী বেগমকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করা হয়েছে। তিনি বলেন, স্থানীয়রা এগিয়ে না আসলে তার মাকে খুন হতে হতো। বর্তমানে তার মায়ের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে। হামলাকারীরা একন মামলা তুলে নিতে বিভিন্ন ভাবে প্রাননাশের হুমকি দিচ্ছে। ফলে তারা পরিবার নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। মামলার অন্যতম আসামী ইসমাইল মাতুব্বরের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। সদরপুর থানার ওসি জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামীদের আটকের চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন...

না ফেরার দেশে চলে গেলেন সাংবাদিক পরিমল

প্রভাত কুমার সাহা, সদরপুর। না ফেরার দেশে চলে গেলেন সাংবাদিক পরিমল ভৌমিক। বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে …

সদরপুরে ট্রাক চাপায় স্বাস্থ্যকর্মী নিহত

প্রভাত কুমার সাহা, সদরপুর। ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার পুকুরিয়া-সদরপুর আঞ্চলিক সড়কের বাচ্চু খানের বাড়ির সামনে ট্রাক …