১ অগ্রহায়ন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ শুক্রবার ১৫ নভেম্বর ২০১৯
Home » ফরিদপুরের সংবাদ » নগরকান্দা » নগরকান্দায় বিএনপি নেতারা রিংকুকে রাজনীতি ছাড়তে বললেন

নগরকান্দায় বিএনপি নেতারা রিংকুকে রাজনীতি ছাড়তে বললেন

বিশেষ প্রতিবেদক  #
ফরিদপুরের নগরকান্দায় বিএনপির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে। রবিবার বিকেলে পৌর এলাকার সাবেক কাউন্সিলর বিল্লাল হোসেন মোল্যার বাড়ীতে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। পৌর বিএনপির আয়োজনে এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্বে করেন পৌর বিএনপির সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদ। বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি নেতা ও কোদালিয়া শহীদ নগর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান রফিকুজ্জামান অনু, নগরকান্দা উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত আলী শরীফ, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালামআজাদ, দপ্তর সম্পাদক গোলাম মোস্তফা , নগরকান্দা পৌর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক কামরুজ্জামান কাজল, নগরকান্দা উপজেলা যুবদলের সভাপতি আলিমুজ্জামান সেলু, নগরকান্দা উপজেলা কৃষক দলের সভাপতি বিল্লাল হোসেন মোল্লা, নগরকান্দা উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি সাইফুল আলম শান্ত. নগরকান্দা পৌর ছাত্রদলের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, ছাত্রদল নেতা জাহাঙ্গীর হোসেন ইয়াদ ,আনোয়ার হোসেন, আবু কায়েচ প্রমুখ। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আলোচনা সভায় বিএনপির ফরিদপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ ইসলাম রিংকুর ব্যাপক সমালোচনা করে বক্তৃতা করেন। বক্তারা বলেন, নগরকান্দা উপজেলা একসময়ে বিএনপির ঘাঁটি হিসাবে পরিচিত ছিল। কিন্তু বিএনপি নেত্রী শামা ওবায়েদ এর কারনে নগরকান্দায় বিএনপির অবস্থা এখন নাজুক পর্যায়ে রয়েছে। রিংকুর কারনে অনেকেই এখন আওয়ামী লীগে যোগ দিচ্ছেন। যারা এখনো বিএনপিতে রয়েছেন তাদের দল থেকে বিতারনের জন্য সব রকমের চেষ্টা চালাচ্ছেন। রিংকু নিজেও আওয়ামী লীগের সাথে আঁতাত করে রাজনীতি করছেন। বক্তারা আরো বলেন, রিংকু কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক হলেও তার এলাকায় তিনি এখন চরম ভাবে বিতর্কিত। তার বির্তকিত কর্মকান্ডের কারনে বিএনপির নেতা-কর্মীরা এখন বিব্রত অবস্থায় রয়েছেন। বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের কাছে আহবান জানিয়ে বক্তারা আরো বলেন, যে নেত্রী তার নিজ এলাকায় কোন সভা-সমাবেশ করতে পারেন না। তার নিজ বাড়ীর ঘরের মধ্যে অনুষ্ঠান পালন করে। যিনি দলের নেতা-কর্মীদের কোন খোঁজ খবর রাখেন না, সেই নেত্রীর কোন দরকার নেই নগরকান্দা-সালথায়। বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, যে নেত্রী আওয়ামী লীগের সাথে আঁতাত করে রাজনীতি করেন সেই নেত্রীর বিএনপি করা সাজেনা। বিএনপি থেকে পদত্যাগ করে তার আওয়ামী লীগে চলে যাওয়ায় উত্তম। শামা ওবায়েদ ইসলাম রিংকুকে বিএনপি থেকে বহিস্কার করারও দাবী জানান বক্তারা। বক্তারা অবিলম্বে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবী করেন।

আরও পড়ুন...

জনগণ রাষ্ট্রীয় উৎপীড়নের মুখে বিপর্যস্ত: ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশের জনগণ এখন রাষ্ট্রীয় উৎপীড়নের মুখে বিপর্যস্ত। ন্যায় …

জিয়াকে নিয়ে সংসদে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য অসত্য দাবি ফখরুলের

জিয়াউর রহমানকে নিয়ে সংসদে দেয়া প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য অসত্য বলে দাবি করেছে বিএনপি। সোমবার ( ০৯ …