আলফাডাঙ্গা

যুবলীগ সভাপতির পিতার বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস, মুচলেকা দিয়ে ছাড় পেল যুবক

আলফাডাঙ্গা  প্রতিনিধি #  ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার ১নং বুড়াইচ ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি ও ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য অসিত কুমার মৃধার পিতার বিরুদ্ধে ফেসবুকে মিথ্যা স্ট্যাটাস দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) এ ঘটনায় ওই যুবলীগ সভাপতি দুই যুবককে অভিযুক্ত করে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযুক্তরা হলো, ওই ইউনিয়নের শিয়ালদী গ্রামের হাসিবুল ইসলাম ওরফে স্বপ্ন মাহমুদ ও রাকিবুল ইসলাম ওরফে রাকিব সাদমান। লিখিত অভিযোগ ও থানা সূত্রে জানা যায়, অসিত কুমার মৃধার পিতার সাথে একই ইউনিয়নের পাড়াগ্রামের বাবলু চৌকিদারের গাছ ক্রয়-বিক্রয় নিয়ে মতবিরোধ সৃষ্টি হয়। পরে স্থানীয় লোকজন বিষয়টি তাৎক্ষণিক সমাধান করে দেন। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে অভিযুক্ত স্বপ্ন মাহমুদ গত ২০ এপ্রিল রাত ১১টায় তার নিজের ফেসবুক আইডিতে ‘ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতির বাবা ও চৌকিদারের উত্তমমধ্যম বিনিময়’ মর্মে স্ট্যাটাস দেয়। একই বিষয় নিয়ে অপর অভিযুক্ত রাকিব সাদমান তার ফেসবুক আইডিতে ‘অজাত কুজাত জুয়াড়ী হটাও, ৫নং ওয়ার্ড বাঁচাও’ মর্মে স্ট্যাটাস দেন। পরে অসিত কুমার মৃধা বিষয়টি নিয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে অভিযুক্তদের থানা কার্যালয়ে ডাকা হয়। পরে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে ‘ভবিষ্যতে এলাকার কোনো ঘটনা ফেসবুক বা টুইটারে আপলোড করবে না। এমনকি কোন সংবাদ, ছবি বা ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করবে না’ মর্মে স্বপ্ন মাহমুদ মুচলেকা দেন। এবিষয়ে অসিত কুমার মৃধা জানান, ‘ আমি একজন রাজনৈতিক কর্মী ও জনপ্রতিনিধি। তাই সমাজে আমার জনপ্রিয়তা ও রাজনৈতিক ইমেজ নষ্ট করার জন্য তারা আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে ফেসবুকে অপপ্রচার করে আসছে। বিষয়টি নিয়ে তাদের বারবার অনুরোধ করা হলেও তারা কর্ণপাত করেনি। পরে বাধ্য হয়ে আইনের সহয়তা নিয়েছি। এছাড়াও স্বপ্নর বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় ফরিদপুর-১ আসনের বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাসহ সম্মানীয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কুৎসা রটনার অভিযোগ রয়েছে।’ অভিযোগের বিষয়ে স্বপ্ন মাহমুদ বলেন, ‘ রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে তারাও আমার বিরুদ্ধে লিখেছে। তাই আমরাও লিখেছি।’ আলফাডাঙ্গা থানা অফিসার ইনচার্জ মো. ওয়াহিদুজ্জামান জানান, ‘ বিষয়টি নিয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে অভিযুক্তকে থানায় হাজির করা হয়। পরে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে সে ভবিষ্যতে এমনকিছু লিখবে না মর্মে অঙ্গীকারনামা দেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *