ফরিদপুর সদর রাজনীতি

যুবদলের মিছিল থেকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ নয়জন গ্রেপ্তার

বিশেষ প্রতিবেদক।
ফরিদপুরে যুবদলের বিক্ষোভ মিছিলে বাধা দিয়েছে পুলিশ। ওই মিছিল থেকে পুলিশ জেলা যুবদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ নয়জন গ্রেপ্তার করেছে। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ফরিদপুর শহরের মুজিব সড়কে জেলখানার সামনে এ ঘটনা ঘটে।পুলিশের দাবি আসন্ন ফরিদপুর পৌরসভার নির্বাচন বানচাল করার জন্য যুবদল সড়কে যান বাহন চলাচলে বাধা দান ও যানবাহন ভাংচুরের উদ্যোগ নিলে মিছিলটি ছত্রভংগ করে দেওয়া হয় এবং ঘটনাস্থল থেকে নয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।
বিএনপি সুত্রে জানা গেছে, ঢাকা-৯ ও পাবনা-৪ আসনের উপ নির্বাচনের ফলাফল বাতিল করে নতুন নির্বাচনের দাবিতে সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি গ্রহণ করে কেন্দ্রীয় যুবদল ।
এরই অংশ হিসেবে বিক্ষোভ মিছিল বের করে জেলা যুবদল। মিছিলটি ফরিদপুরের কোর্ট চত্ত্বর থেকে শুরু হয়ে মুজিব সড়ক দিয়ে জনতা ব্যাংকের মোড়ের দিকে এগুতে থাকে। মিছিলটি জেলা কারাগারের প্রধান ফটক পাড় হওয়ার সময় পুলিশ ওই মিছিলে হামলা চালিয়ে যুবদলের নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তার করে।
যাদের গ্রেপ্তার করা হযেছে তাদের মধ্যে জেলা যুবদলের সভাপতি মো. রাজীব হোসেন (৪০), সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন (৩৯), সহ-সম্পাদক আলী মোহাম্মদ (২৯), শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ইব্রাহিম মাহমুদ (৪০) রযেছেন। যুবদলের নেতা-কর্মীদের মধ্যে অন্য যারা গ্রেপ্তার হয়েছেন তারা হলেন মো. ওমর ফারুক (৩২), ফয়সাল সর্দার (৩১), মো. রাজীব (২৫), এসএম আজমল হোসেন (৩৫) ও সরল ইসলাম (২২)।
ফরিদপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোরশেদ আলম বলেন, আসন্ন ফরিদপুর পৌসসভার নির্বাচনকে বানচাল করার উদ্দেশ্যে যুবদলের নেতাকর্মীরা সড়কে নেমে যানবাহন চলাচলে বাধা প্রদান ও যানবাহন ভাংচুরের উদ্যোগ নেয়। পুলিশ তাদের এ কাজে বাধা দিলে তারা মারমুখী হয়ে ওঠে। ওই সময় পুলিশ ওই নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তার করে জনসাধারণের যানমাল ও জনসম্পত্তির নিরাপত্তা নশ্চিত করতে প্রতিরোধমূলক ব্যাবস্থা হিসেবে ফৌজদারি দন্ডবিধির ১৫১ ধারায় তাদের গ্রেপ্তার করে বিকেলে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। তবে এ বক্তব্য নাকচ করে দিয়ে জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোদাররেছ আলী ইছা বলেন, এটি ছিল যুবদলের দেশব্যাপী কেন্দ্রীয় কর্মসূচি। তাছাড়া ফরিদপুর পৌরসভার নির্বাচনে বিএনপি দলীয় প্রার্থী নিয়ে অংশ নিচ্ছে। ‘তাই এ নির্বাচন বানচালের কেন যুবদল করবে’- প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, সরকার বিরুদ্ধমত দমন করার উদ্দেশ্যে এ মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *