মধুখালী

মধুখালীতে জমে উঠেছে পেয়াজের চারার হাট

মধুখালী (ফরিদপুর) প্রতিনিধি #

মধুখালীতে জমে উঠেছে পেয়াজের চারার হাট। চারা রোপনের মৌসুমকে কেন্দ্র করে প্রতি বছরই হাট জমে মধুখালীতে। পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের মরিচ বাজারে এ হাট জমে। সপ্তাহের সোমবার ও শুক্রবার এ দুটি দিনে সকাল থেকেই ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে হাট। বিভিন্ন প্রজাতির বিদেশি ও দেশি জাতের চারা বিক্রি হয় এ হাটে।

এ বছর মধুখালীর বিভিন হাটে কৃষকেরা পেয়াজের চারা সংগ্রহ করতে ব্যস্ত দেখা যাচ্ছে। তবে গত বছরের তুলনায় দাম বেশী হওয়ায় কৃষক হতাশ।

উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় গত মৌসুমের তুলনায় চলতি বছর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর পেয়াজের চারা রোপনের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্খা করলেও অতিবৃষ্টির কারণে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় পূর্বে রোপনকৃত চারা নষ্ট হয়ে যায়। উপজেলার সবচেয়ে বড় মধুখালী বাজার হাটে সোমবার চারা সংগ্রহ করতে ভীড় পড়ে গেছে কৃষকদের। দেশের মানিকগঞ্জ ঝিটকা, রাজবাড়ী জেলার বহরপুর, নারুয়া,সোনাপুর, বস্তাবাজার,কসাইপুরসহ বিভিন্ন স্থান থেকে মিনি পিকআপে করে চারা আসে মধুখালীর হাটে। এখান থেকে সেগুলো আবার বিভিন্ন জেলায় পৌচ্ছে যায় এ চারা।

প্রথম দিকে খুচরা পর্যায়ে প্রতিমন চারার দাম ৩ হাজার থেকে ৩৫’শ টাকায় বিক্রি হলেও এখন ৮‘শ টাকা থেকে ১৫’শ টাকায়বিক্রি হচ্ছে। গত বছরের তুলনায় এবার চারার দাম কিছুটা বেশী। হাটে চারার আমদানীও ব্যাপক দেখা যায়। চারা রোপন করতে কৃষকরা এখনব্যস্ত সময় কাটাতে হচ্ছে। সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত শতশত কৃষকহাটে চারা সংগ্রহ করতে হাজির হচ্ছে।

মধুখালী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আলভির রহমান জানান, ১০ হেক্টর পর্যন্ত চারা রোপন করেছে কৃষকরা। সামনে আরো একমাস কৃষকরা চারা রোপন করবেন। তাতে এবার লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। পেয়াজের কদমবীজ ৯৫ হেক্টর ও ১৮০ হেক্টর বীজতলা করা হয়েছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *