মধুখালী

ভোগান্তির অপর নাম মধুখালী-বালিয়াকান্দির বিল আড়–লিয়া সড়ক

মধুখালী প্রতিনিধি।
সড়কের বিভিন্ন অংশে দেখে বোঝার উপায় নেই এটি পাকা সড়ক না কাচা। এ সড়ক দিয়ে কেউ ছোট বড় যানবাহন নিয়ে একবার চলাচল করলে পুনরায় এখান দিয়ে যাবার সাহস করেন না। দীর্ঘদিন ধরে সড়কটির বেহালদশা থাকলেও সংস্কার করার উদ্যোগ নেই কতৃপক্ষের। বেহাল এ সড়কটির অবস্থান হচ্ছে ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার মেঘচামী ইউনিয়নের বালিয়াকান্দি ভায়া মেঘচামী ইউনিয়ন পরিষদ পর্যন্ত। প্রায় ৬ কিলোমিটার জুড়ে এ সড়কটির বেশীর ভাগ অংশই খানা খন্দক ও কয়েকটি বড় গর্ত হওয়ায় জনসাধারনের চলাচলে দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। মেঘচামী ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের অদূরে বিল আড়–লিয়া বাজার এলাকায় বড় ধরনের গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় যানবাহন চলাচলে বিঘœ ঘটছে। মাঝে মধ্যেই এ সড়কের গর্তে পড়ে বিকল হচ্ছে ছোট বড় যানবাহন। প্রতিদিনই ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। এ সড়ক দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে কাদা-পানিতে পড়ে গিয়ে অনেকেই আহত হচ্ছেন। বিশেষ করে যারা ভ্যান ও সাইকেল নিয়ে চলাচল করেন তারাই পড়েন সবচে বেশী বিপদে। প্রতিদিন এ সড়ক দিয়ে হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করে থাকে। এ সড়কের বিভিন্ন স্থানে বেশ কয়েকটি বড় গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় ট্রাক উল্টে পড়ার ঘটনাও ঘটেছে। চরবামুন্দি, সাইনবোর্ড, রামদিয়া ছোট ব্রীজ এলাকায় মাঝে মধ্যেই ঘটছে দুর্ঘটনা। বর্তমানে এ সড়কটি মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, একাধিকবার জনপ্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষকে জানানো হলেও তারা কোন উদ্যোগ নেননি। ফলে দীর্ঘদিন ধরে এ সড়কটি বেহালদশায় রয়েছে। দ্রুতই সড়কটি মেরামত করতে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।
মধুখালী উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ রফিকুল ইসলাম দৈনিক ফরিদপুর কন্ঠকে বলেন, সংস্কার বা মেরামত করতে যে ফান্ডের প্রয়োজন সে পরিমান অর্থ বরাদ্দ নেই। সড়কটি মেরামতে টেন্ডার ও ঠিকাদার নিয়োগ হয়েছে। অর্থের অভাবে দ্রুতই তা সমাধান করা যাচ্ছে না। তবে খুব শীঘ্রই বামুন্দি বাজার হতে মেঘচামীর শেষ সীমানা পর্যন্ত সড়কটি প্রশস্ত এবং মেরামতের কাজ শুরু করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *