ফরিদপুর সদর

ফরিদপুরে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা সাতশ ছাড়ালো

কামরুজ্জামান সোহেল।
ফরিদপুরে গত ২৪ ঘন্টায় চিকিৎসক, পুলিশ, আনসারসহ আরও ৫৭ জনের করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে ফরিদপুর জেলায় করোনাভাইরাস শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৭০৮ জন। শুক্রবার সকালে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের করোনা শনাক্তকরণ ল্যাব সুত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে একজন চিকিৎসকের, দুই পুলিশ সদস্য ও দুই আনসার সদস্যের। ফরিদপুরে নতুন করে যে ৫৭ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে তাদের মধ্যে ভাঙ্গায় ১৯, ফরিদপুর সদরে ১৬, বোয়ালমারীতে ১২, সদরপুরে ৮, মধুখালী ও চরভদ্রাসনে ১ জন করে। আক্রান্তদের মধ্যে ১৯ জন নারী ও ৩৮ জন পুরুষ। ফরিদপুর সদর উপজেলায় যারা আক্রান্ত হয়েছেন তারা হলেন, আলীপুরের হুমাইরা, শামীমা, হাবিবুল্লা, হাবিবা, মফিজুর রহমান, শাহানুর আলম, ঈশান গোপালপুরের মেহেদী হাসান, তাপস সাহা, পূর্বখাবাসপুরের আবুল বাশার খান, শোভারামপুরের প্রদীপ সাহা, নাজমুল হুদা, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডা. ইফতেখার, সদর হাসপাতালের লতিফ মোল্লা, গুহলক্ষীপুরের আনুরা বেগম, বদরপুরের ইউসুফ, কাফুরার শিরিয়া বেগম।
শুক্রবার পর্যন্ত ফরিদপুরে মোট শনাক্ত ৭০৮ জনের মধ্যে ভাঙ্গায় ১৮৪ জন, ফরিদপুর সদরে ১৮০ জন, বোয়ালমারীতে ১১২ জন, সদরপুরে ৫২, চরভদ্রাসনে ৫১, নগরকান্দায় ৪৫ জন, আলফাডাঙ্গায় ৩৮, সালথায় ২৬ জন এবং মধুখালীতে ২০ জন।
ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান বলেন, ভাঙ্গা, ফরিদপুর সদর, বোয়ালমারী, সদরপুর, মধুখালী ও চরভদ্রাসনে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে যে ৫৭ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে তাদের প্রত্যেকের বাড়ি বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।
ফরিদপুরের সিভিল সার্জন মো. ছিদ্দীকুর রহমান বলেন, আক্রান্তদের আপাতত বাড়িতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হবে। তবে শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হলে তাদের ফরিদপুরের করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে স্থনান্তর করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *