ফরিদপুর সদর

প্রবীর সিকদারের বিচারের দাবীতে এবার মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন

বিশেষ প্রতিবেদক #
মহাণ মুক্তিযুদ্ধ এবং মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে কটাক্ষ করে নিজের ফেসবুক আইডিতে মন্তব্য করায় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘উত্তরাধিকার-৭১’ এর সম্পাদক প্রবীর সিকদারের গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন করেছে ফরিদপুরের মুক্তিযোদ্ধারা। মঙ্গলবার দুপুরে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা জেলা সংসদের ইউনিট কমান্ডার মোঃ আবুল ফয়েজ, ডেপুটি ইউনিট কমান্ডার নজরুল ইসলাম জামাল, নগরকান্দা উপজেলা ইউনিট কমান্ডার ফজলুল হক, চরভদ্রাসন উপজেলা ইউনিট কমান্ডার শফিউদ্দিন খালাসী, বোয়ালমারী উপজেলা ইউনিট কমান্ডার আবদুর রশিদ মোল্লা, সদরপুর উপজেলা ইউনিট কমান্ডার এম এ গফ্ফার, ভাঙ্গা উপজেলা ইউনিট কমান্ডার আবুল বাশার মাতুব্বর, সালথা উপজেলা ইউনিট কমান্ডার আবুল কালাম, মধুখালী উপজেলা ইউনিট কমান্ডার খুরশিদ আলম প্রমুখ।

প্রবীর সিকদারের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করে মুক্তিযোদ্ধারা বলেন, প্রবীর সিকদার সাম্প্রতিক সময়ে তার ফেসবুক-এ বিভিন্ন বিতর্কিত মন্তব্য করে ফরিদপুর জেলাকে অশান্ত করার পাঁয়তারা চালাচ্ছেন। যা ইচ্ছে তাই লিখে যাচ্ছেন। তার লিখনীতে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযোদ্ধারাও রেহাই পাচ্ছেন না। তারা বলেন, প্রবীর সিকদার তার ফেসবুক আইডিতে লেখেন, হিন্দুরা পাকিস্তান চায়নি, সেই পাকিস্তান টিকে থাকতে পারেনি। সংখ্যায় যত কমই হোক, হিন্দুদের প্রত্যাশার ভিন্ন মাত্রা রয়েছে এই ভুখন্ডে’। এমন সাম্প্রদায়িক কথা বলে প্রবীর সিকদার হিন্দু-মুসলমানের সম্প্রীতি নষ্ট করার চক্রান্ত করার পাশাপাশি মহাণ মুক্তিযুদ্ধকে নিয়েও কটাক্ষ করার দৃষ্টতা দেখাচ্ছেন। প্রবীর সিকদারের এমন উস্কানীমূলক লেখার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তারা আরো বলেন, অবিলম্বে প্রবীর সিকদারকে আটক করে আইনের আওতায় আনতে হবে। নইলে সারাদেশের মুক্তিযোদ্ধারা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কঠোর আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবে। উল্লেখ্য, গত কয়েক মাস ধরে সাংবাদিক প্রবীর সিকদার তার ফেসবুক আইডি থেকে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতাদের নামে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন সংবাদ পরিবেশন করে আসছে। এছাড়া সমাজের মান্যগন্য বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষকে নিয়ে তিনি মনগড়া মিথ্যা ও অসত্য কথা লিখে যাচ্ছেন। যার প্রেক্ষিতে ফরিদপুরের আপামর জনতা বিক্ষুব্দ হয়ে উঠেছে। প্রবীর সিকদারের বিচারের দাবীতে ফরিদপুরের সম্মিলিত হিন্দু সমাজ, জেলা আওয়ামী লীগ, সম্মিলিত জেলাবাসী ও মুক্তিযোদ্ধারা পৃথক পৃথক কর্মসূচি পালন করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *