মধুখালী

পুলিশ সদস্যকে মারধোর করায় আ.লীগ নেতা গ্রেপ্তার

ফরিদপুরের মধুখালীতে হাইওয়ে পুলিশের এক কনস্টেবলকে মারধোর করায় এক আওয়ামী লীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকালে মধুখালী পেয়াজ বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
গ্রেপ্তার হওয়া ওই আওয়ামী লীগ নেতার নাম মীর্জা ইমরুল কায়েশ (৫২)। তিনি মধুখালী পৌর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক। এছাড়া তিনি মধুখালী পেয়াজ বাজারের একজন আড়তদার। মীর্জা ইমরুল কায়েশ মধুখালী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মির্জা মনিরুজ্জামান বাচ্চুর ভাই।
মীর্জা ইমরুল কায়েশ যে পুলিশ সদস্যকে মারধোর করেছেন তিনি হলেন নাজমুল হোসাইন (২৮)। সে ফরিদপুর হাইওয়ে পুলিশের কনস্টেবল হিসাবে কর্মরত রয়েছেন। তিনি মধুখালী উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের ব্রাহ্মনকান্দা গ্রামের বাসিন্দা।
মধুখালী থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সকালে মধুখালী পেয়াজ বাজারে পেয়াজ বিক্রি করতে যান পুলিশ সদস্য নাজমুল। তিনি আড়তদার ও আওয়ামী লীগ ইমরুলের আড়তে পেয়াজ বিক্রি করেন। পেয়াজ কিনে টাকা দেওয়ার ব্যপাারে সময় ক্ষেপন করেন ইমরুল। পুলিশ সদস্য নাজমুল টাকা পেতে দেরী করায় ক্ষোভ প্রকাশ করলে ইমরুলসহ তার কয়েকজন শ্রমিক এসে পুলিশ সদস্য নাজমুলকে বেদমভাবে প্রহার করে। পরে মধুখালী থানার পুলিশ এসে নাজমুলকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। ওই সময় ইমরুলকে আটক করা হয়।
মধুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল রহমান বলেন, এ ঘটনায় পুলিশ সদস্য নাজমুলের মামা মোস্তাক আহমেদ বাদী হয়ে ইমরুলসহ কয়েকজনকে আসামি করে মারপিটের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলায় ইমরুলকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। তিনি বর্তমানে মধুখালী থানায় পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *