নগরকান্দা

নগরকান্দায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, ছাত্রলীগের সভাপতিসহ আহত-৮

কন্ঠ রিপোর্ট #
ফরিদপুরের নগরকান্দায় পারিবারিক বিরোধের জের ধরে মঙ্গলবার দুপুরে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে নগরকান্দা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতিসহ উভয় গ্রুপের ৮ জন আহত হয়েছে। আহতদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে ২ জনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে।
নগরকান্দা থানা পুলিশ ও স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা গেছে, নগরকান্দা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আলামিন মীর তারই আত্বীয় জামাল মীরের মালিকানাধীন মেসার্স তোফাজউদ্দিন পেট্রোল পাম্পে চাকুরী করতো। সম্প্রতি আলামিন পাম্পের বেশকিছু টাকার হিসাব দেখাতে না পারায় তাকে চাকুরীচ্যুত করে জামাল মীর। এরপর থেকেই উভয় পরিবারের মাঝে বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধের জের ধরে আলামিনকে মাদক দিয়ে পুলিশে ধরিয়ে দেয়া হয়। সেই মাদক মামলার হাজিরার তারিখ ছিল মঙ্গলবার। মামলার হাজিরা দিয়ে বাড়ী ফেরার পথে জামাল মীরের লোকজন তালমা মোড়ে আলামিনকে আটক করে প্রহার করে। এ ঘটনার জের ধরে আলামিনের লোকজন বেলা দুইটার দিকে নগরকান্দার কোদালিয়া শহীদ নগর ইউনিয়নের আটকাউনিয়া বাজারে গিয়ে জামাল মীর ও তার সহযোগীদের উপর হামলা করে। এসময় দুইপক্ষের লোকজন একে অপরের উপর রামদা, চাপাতি, হকিষ্টিক, লোহার রড নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে আহত হয় আলামিন মীর, সোহাগ মীর, জামাল মীর, ওদুদ মীর, মিঠু, সলে, অনিক ও কাউসার। পরে স্থানীয়দের সহযোগীতায় পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। আহতদের প্রথমে নগরকান্দা হাসপাতালে নেয়া হয় পরবর্তীতে আহত উভয় পক্ষের ৮ জনকেই ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে ওদুদ মীর ও সোহাগ মীরের অবস্থা আশংকাজনক বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন।
নগরকান্দা থানার ওসি জানান, পারিবারিক বিরোধের জের ধরে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ বিষয়ে এখনো কোন মামলা হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *