নগরকান্দা

করোনাকালে মানুষের দোড়গোড়ায় যাচ্ছেন নগরকান্দার ইউএনও

মাহফুজুর রহমান, নগরকান্দা।
ফরিদপুর জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দিনকে দিন ভয়াবহ আকারে বাড়ছে। প্রতিদিন শতাধিক ব্যক্তি আক্রান্ত হচ্ছে করোনায়। এরমধ্যে মারা গেছেন বেশ কয়েকজন। ফরিদপুর জেলার মধ্যে সর্ব প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত হয় নগরকান্দা উপজেলায়। নগরকান্দায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ার কারনে কিছুদিন আগে বেশ কয়েকটি এলাকা লকডাউন করা হয়। লকডাইনের ফলে অনেকেই মারাত্বক অসুবিধার মধ্যে পড়তে হয়েছে। উপজেলার অনেক জায়গা ঘুরে দেখা গেছে এ পরিস্থিতিতে খেটে খাওয়া এবং দিন এনে দিন খাওয়া মানুষের আয়ের উৎস একদমই বন্ধ হবার পথে। মধ্যবিত্ত এবং নিম্নমধ্যবিত্তদের অবস্থাও সংকটাপন্ন। লোকলজ্জার খাতিরে মুখ ফুটে বলছেন না অনেকেই। এই পরিস্থিতিতে মানুষের মাঝে সরকারী ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দিতে নির্দেশ দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । সেই ধারাবাহিকতায় নগরকান্দা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। এই কার্যক্রম সঠিক ভাবে পরিচালনার জন্যে সবসময় পর্যবেক্ষন করছেন নগরকান্দার ইউএনও জেতী প্রু। তিনি জানান, চলমান করোনা পরিস্থিতিতে বিভিন্ন ইউনিয়নের অসহায় ও দুঃস্থদের খাদ্য সংকটে থাকা মানুষদের সাহায্যার্থে প্রতিটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে ইতিমধ্যেই তালিকা তৈরী করা হয়েছে। এছাড়া লোকলজ্জার ভয়ে অনেকেই সাহায্য চাইতে পারেন না। সেইসব পরিবারের খোঁজখবর নিয়ে তাদের নামও তালিকায় অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। তালিকা অনুয়ায়ী সকল বরাদ্দ পর্যায়ক্রমে ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে সকলের কাছে পৌছে দেয়া হচ্ছে। একজন ব্যাক্তিকে দুইবার ত্রাণ দেওয়া হবে না এবং কোন ব্যাক্তি ত্রাণ কার্যক্রম থেকে বাদ পড়বে না। এখানে যাতে কোন দুর্নীতি না হয় সেদিকে বিশেষ নজর রাখা হচ্ছে। শতভাগ স্বচ্ছতার সাথে ত্রাণগুলো মানুষের কাছে পৌছে দিতে উপজেলা প্রশাসন তৎপর রয়েছে। ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম দুর্নীতি করলে কাউকে কোন রকম ছাড় দেয়া হবেনা। অসহায় কোন ব্যাক্তিই তালিকা থেকে যাতে বাদ না যায় সে বিষয়ে চেয়ারম্যানদের বিশেষভাবে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়া হচ্ছে।
স্থানীয় অনেকেই বলেছেন, করোনা মোকাবেলায় জনসচেতনতামূলক বিভিন্ন দৃশ্যমান পদক্ষেপ ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে সর্বদা রয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা । করোনা ভীতিকে উপেক্ষা করে তিনি ও তার অফিসের কর্মকর্তারা মাঠে নেমে সাহসের সাথে কাজ করে চলেছেন। তার বিভিন্ন কার্যক্রমের কারনে তিনি নগরকান্দাবাসীর প্রিয় একজন মানুষ হিসাবে সুনাম অর্জন করেছেন। ইউএনও জেতী প্রু নগরকান্দার প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে গিয়ে করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতামূলক যে কার্যক্রম চালাচ্ছেন তাতে জেলার মধ্যে দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করেছেন। যেখান থেকেই অসহায় মানুষের বিষয়ে তার কাছে সাহায্যের আবেদন আসছে তিনি গোপনে বাড়ী বাড়ী গিয়ে সাহায্য সহযোগীতা করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *